আজ রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
আজ রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

পদ্মাসেতুর উদ্বোধনী মঞ্চে যাওয়া হলনা তাদের করোনা পজেটিভি শরীয়তপুরের ৩ এমপি’র!

শরীয়তপুরের ৩ জন সংসদ সদস্য-ই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শরীরীক ভাবে সুস্থ্য থাকলেও নমুনা পরীক্ষায় তাদের কোভিট পজেটিভ এসেছে । শুক্রবার দুপুরে কোভিট পজেটিভ রির্পোট হাতে পৌছায় তাদের। একারণে পদ্মাসেতুর উদ্বোধনী মঞ্চে যেতে পারেন নি তারা। এছাড়া শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে’র রির্পোটও করোনা পজেটিভ এসেছে। তিনিও এ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারেননি।
শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগ সূত্রে জানা গেছে, পদ্মাসেতুর উদ্বোধন শেষে শিবচরের বাংলাবাজারে অনুষ্ঠত জনসভায় মন্ত্রী, এমপি ও দলীয় নেতাসহ ৪১ জনের মঞ্চে উঠার সিদ্ধান্ত হয়। শরীয়তপুর ২ আসেন সংসদ সদস্য ও পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ে উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, শরীয়তপুর ১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, শরীয়তপুর ৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক ও শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সদস্পাদক অনল কুমার দে’ এ ৪১ জনের মধ্যে মঞ্চে থাকার কথা ছিল। কোভিট পরীক্ষায় তাদের পজেটিভ আসায় মঞ্চে যেতে পারেনি শরীয়তপুরে এ চার নেতারা। তবে শারীরীক ভাবে তারা সুস্থ্য রয়েছে।
শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে বলেন, আমিসহ আমাদের ৩ এমপির কোভিট পজেটিভ এসেছে। আমরা শরীরীকভাবে সুস্থ্য আছি। জেলা আওয়ায়ামী লীগের নেতৃত্বে হাজার হাজার নেতাকর্মী লঞ্চ, ট্রলার, বাস ও মোটরসাইকেল যোগে জনসভায় যোগ দিয়েছে। ঘরে বসেই সব মনিটর করেছি।
শরীয়তপুর ৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক এমপি বলেন, গত এক মাস যাবৎ দিনরাত পরিশ্রম করেছি এ জনসভাকে সফল করতে। হঠাৎ করোনা পজেটিভ এসেছে। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার বিষয় রয়েছে তাই আমরা মঞ্চে উঠিনি। আমার নির্বাচনী এলাকা থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী লঞ্চ, ট্রালারসহ সড়ক জনসভায় অংশ নিয়েছে। আমি নিজেই সব মনিটর করেছ্।ি

পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ে উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেন , বন্যা কবলিত মানুষের পাশে থেকে এলাকায় গিয়ে বান ভাসি মানুষের খোজ খবর নিয়েছি এতে আমি খুশি। মাননিয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দেষে সবসময় বান ভাসি মানুষের পাসে ছিলাম থাকব। আমরা অনেক খুশি শত বাধা ভেদ করে মাননিয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করেছে। দিকে ৪/৫ দিন যাবৎ আমার ঠান্ডা জর হয়। তাই করোনা পরীক্ষা করি শুক্রবার রাতে করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর পাই। ১মাস যাবৎ দিনরাত পরিশ্রম করেছি জনসভাকে সফল করতে। হঠাৎ করোনা পজেটিভ এসেছে। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার বিষয় রয়েছে তাই আমরা মঞ্চে উঠিনি। আমার নির্বাচনী এলাকা থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী লঞ্চ, ট্রালারসহ সড়ক জনসভায় অংশ নিয়েছে।আমার এলাকা থেকে নেতাকর্মী ৫শতাধীক লঞ্চ, ট্রালার বিভিন্ন সাজে সজ্জিদ করে সভা স্থলে আসেন। আমি নিজেই সব তদারকি করেছ্

সংবাদটি লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন