আজ রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
আজ রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

শরীয়তপুরে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের লক্ষ্যে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা

আজ সোমবার  রাত ৮টা থেকে সাড়ে নটা পর্যন্ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।  প্রত্যেক ব্যবসায়ী ও দোকানদারদের সরকার ঘোষিত বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের  সচেতনামূলক কথাবার্তা বলেন। এবং বিপুনি বিতান মোবাইলের দোকান   বন্ধ করার নির্দেশ দেন।  এ নির্দেশনার আওতার বাহিরে থাকবেন ঔষধের দোকান, মুদির দোকান, খাবারের দোকান, শাকসবজির দোকান । সচেতনতা মূলক কথা বলেন দোকানদারদের সাথে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা । আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে সরকার ঘোষিত যেসব দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে সেসব দোকান ৮টার পরে যদি খোলা রাখে তাহলে তাদের জেল জরিমানা করা হবে বলে ব্যবসায়ীদের জানান।

জানাগেছে, শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট পারভেজ হাসান এর নির্দেশে বিদ্যুত ও জ্বালানি সাশ্রয়ে রাত ৮. ০০ শপিংমলসহ যে সকল দোকানপাট বন্ধ রাখার কথা তা বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে উপজেলা প্রশাসন সদর শরীয়তপুর। অভিযানে নেতৃত্ব দেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র এবং (এসি ল্যান্ড) সদর, মনিজা খাতুন। সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাত ৮.০ টার পর শপিংমল খোলা রাখায় ৫ প্রতিষ্ঠানকে দুই হাজার সাতশত টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটগণ জানান, বিদ্যুত ও জ্বালানি সাশ্রয়ে এ অভিযান নিয়মিত চলমান থাকবে। আজ সকলকে সতর্ক করা হয়েছে পরবর্তীতে এরুপ নির্দেশনা অমান্য করলে কঠোর ব্যাবস্থা নেয়া হবে। অভিযানে সহযোগিতা করেন পালং থানা পুলিশের এসআই ও সদস্যগণ।

সংবাদটি লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন