আজ রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
আজ রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

ফেনীতে ওএমএস ও টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু

খাদ্যশস্যের বাজারমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রবণতা রোধকল্পে নিম্ন আয়ের জনগোষ্ঠীকে মূল্য সহায়তা দেওয়া এবং বাজারদর স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে ফেনীতে টিসিবি কার্ডধারীদের ওএমএস কার্যক্রমের সাথে সমন্বয় করে চাল বিক্রয় করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে জেলার মোট ৬টি উপজেলায় ৬০ হাজার ৯৫৪ জন টিসিবি’র কার্ডধারীর কাছে ৩০ টাকা দাম ধরে ৫ কেজি চাল বিক্রয় করা হচ্ছে। প্রতিজন মাসে দু’বার করে মোট ১০ কেজি চাল ক্রয় করতে পারবেন।
সকালে ফেনী কলেজ রোডস্থ ওএমএস ডিলারের মাধ্যমে টিসিবি পণ্য বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকারের উপ পরিচালক ড. মঞ্জুরুল, ফেনীর পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী।

স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক ড. মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, সদর উপজেলার ২০ হাজার ৮৪৫ জন, ছাগলনাইয়ায় ৮ হাজার ৭০২ জন, সোনাগাজীর ১০ হাজার ১৬৪ জন ,পরশুরামের ৭ হাজার ৫৪৬, দাগনভূইঞার ৯ হাজার ৪২১ জন ও ফুলগাজীর ৪ হাজার ২৭৬ জন কার্ডধারী ওএমএস এর ডিলার থেকে চাল ক্রয় করতে পারবেন।

সদর উপজেলার ১৮ জন ওএমএস ডিলারের মধ্যে ৬ জনের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে শুধু শুক্রবার ও শনিবার ব্যতিত প্রতিদিন দুই মেট্রিক টন করে মোট ১২ মেট্রিক টন চাল প্রতি কেজি ৩০ টাকা দরে বিক্রয় করা হবে।

জেলা সদরের ওএমএস কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে তদারকির লক্ষ্যে খাদ্য বিভাগ কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে । পাশাপাশি জেলার অবশিষ্ট পাঁচটি উপজেলায় নিয়োগকৃত ১৭ জন ডিলারের মাধ্যমে ডিলার প্রতি দুই মেট্রিক টন হারে মোট ৩৪,০০০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হবে ।

তিনি বলেন, টিসিবির নির্ধারিত কার্ডধারীরা ওএমএস এর লাইনের সাথে চাল ক্রয় করতে পারবেন। টিসিবির কার্ডধারীদের চাল প্রদানের পর ওএমএস ডিলাররা টিসিবির কার্ডের পেছনে নমুনা সীল/পাঞ্চ মেশিন দিয়ে কার্ডের উপরে প্রতিবার একটি ছিদ্র করে দেবেন।

সংবাদটি লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন